বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন
/ সাহিত্য
অন্তিম_যাত্রার_গদ্য_ভাবনা রিজিয়া বেগম অথচ একা একা নিরব নিস্তব্ধ কোথাও শীতল – নির্মোহ ‘মৃত্যু’ কখনও কাঙ্খিত ছিলো না আমার। কাঙ্খিত ছিলো না শেষ যাত্রা পথের শুরুতে উৎকণ্ঠিত প্রিয় মুখের অনুপস্থিতি। মৃত্যুর ...বিস্তারিত
অসমাপিকা পাপিয়া মন্ডল তোমার আমার সমান্তরাল সম্পর্কটাকে,বার বার ছুঁতে চেয়েছি ..অনুভূতির অদৃশ্য স্পর্শক দিয়ে!যখনি ছুঁয়েছি ভেবে স্বস্তি পেয়েছি,পরক্ষণেই ভ্রমটা মরীচিকা হয়ে গেছে। শুধুমাত্র বাঁচতে হয়, তাই বাঁচি।কথা বলার জন্যই, বলি।চলতে
মন পরিমল কুমার পরাণ কি মায়ায় বাঁধা পড়ে মনবলতে কি পার প্রিয়জন! বলতে কি পার কেনআসে অকারনে চোখে জল! ক্ষনিক সুখের আশায় কেনঘর বাঁধে প্রিয়জন! ছন্নছাড়া হাত খোঁজে ফিরেকেন বাঁচার
পরিমল কুমার পরাণঃকেশরহাটে প্রদীপ্ত সাহিত্যাসর’র মাসিক কবিতাপাঠের আসর আজ(শনিবার) বিকেল ৪ টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।করোনার কারনে দীর্ঘ বিরতীর পর কবি ও সাহিত্যিকদের মিলন মেলা ঘটে উক্ত সাহিত্য আসরে!প্রদীপ্ত সাহিত্যাসর’র সভাপতি কবি
‘ঘুম’ না জানি কোন বিরহে,ঘুম আমায় দেইনা ধরা।চোখের কোনে ঘুম ছুয়ে,ঘুম চলে যায় দূর অজানাঘুম বালিশে মাথা রেখেঘুমের দেশে যায় ছুটে যায়।ঘুম তবুও আমায় থেকে পালিয়ে পালিয়ে যায়।ঘুমের দেশে নাম
যৌতুকলেখক ঃদিব্যেন্দু মিত্র সন্তানকে পণ্য করেনিচ্ছে যারা যৌতুক,নিচু মনে করছে তারাজাতির সাথে কৌতুক। জঘন্যতার দোষে দুষ্টকালো প্রথার মূল্য,সমাজটাকে সাপের মুখেতুলে দেওয়ার তুল্য। প্রগতিশীল,ধর্মবাদীযারাই তাতে পুষ্ট,মনটা তাদের ঘিরে আছেদুরারোগ্যের কুষ্ঠ। সামাজিক
খোলা আকাশের নিচে ঝলসে যাওয়াতপ্ত রোধের দাবদাহে,ফুটপাত, আইল্যান্ড কখনওবা ওভারব্রিজের কোনে,পড়ে আছে ছাউনি ঘেরাছোট্ট চিলে কোঠোয় গড়িয়ে পড়া জ্বলে,তবুও ওরা করছে লড়াইবেঁচে থাকার সর্বহারা পরাজয় মেনে!যায়নি লাঠিহাতে রাজপথেকরেনি মিছিল, মিটিং
“ভালোবাসাহীন পৃথিবী “ {দিল আফরোজা রোজী } ভাবছি ভালোবাসার গায়ে আতর মেখে তাকে কিছুটা সুগন্ধময় করবো,পচনশীল এই ভালোবাসা এখন দূর্গন্ধ ছড়িয়ে বেড়াচ্ছে যত্রতত্র।একজীবনে স্বার্থহীন সুগন্ধমোদিত ভালোবাসা কে খুঁজে পেতাম __সেই