শিরোনাম
শেখ রাসেলের জন্মদিনে আওয়ামী লীগের শ্রদ্ধা রাজশাহীতে নেশার টাকা না পেয়ে পুত্রের হাতে পিতা খুন সুনামগঞ্জে’ প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন-ডিসি খালেদা জিয়া জনগণের পার্লামেন্টে খুনিদের বসায়: প্রধানমন্ত্রী তাহিরপুর সীমান্তে(প্রায়) ৫লক্ষ টাকার মালামাল আটক তালেবানের সঙ্গে ভারতের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে পর্যটকবাহী নৌযান চলাচলে নতুন নির্দেশনা জারি করেছেন -(ইউএনও) রওশন এরশাদ এমপি’র সুস্থতা কামনায় এরশাদ ট্রাষ্টের খতমে কুরআন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে জাতীয় পতাকা উত্তোলনে অনিয়ম: লিখিত অভিযোগ( ইউএনও) অফিসে আইসিইউতে রওশন এরশাদ দোয়া চাইলেন বিডিএ চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিন বাচ্চু
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন

রেমিট্যান্স জাদু নয়, যে জায়গায় ছিল সেখানেই থাকবে: অর্থমন্ত্রী

রিপোটারের নাম / ৬৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১
add

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানিয়েছেন, রেমিট্যান্স কোনো জাদু নয়, এ কারণে রেমিট্যান্স যে জায়গায় ছিল সেখানেই থাকবে বলে আশা করছি।

বুধবার (১১ আগস্ট) ২২তম অর্থনৈতিক সংক্রান্ত এবং ২৭তম সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে এক অনলাইন ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান অর্থমন্ত্রী। আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি এ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

সিপিডির মন্তব্য রেমিট্যান্সের জাদু শেষ হয়ে আসছে- এ বিষয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, রেমিট্যান্স জাদু নাকি? রেমিট্যান্স যদি জাদু হয়ে থাকে তাহলে শেষ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু রেমিট্যান্স তো কোনো জাদু নয়। তাই রেমিট্যান্স কখনো শেষ হবে না। রেমিট্যান্স যে জায়গায় ছিল সেখানেই থাকবে।

তিনি আরও বলেন, সমস্যা হচ্ছে, ২০১৯ সালে আমরা যখন রেমিট্যান্সের বিষয়ে প্রণোদনা প্রদান করা শুরু করি তখন থেকে একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠী অবস্থান নেয় এর বিরুদ্ধে। তারা সবসময় বলে আসছিলো যে, প্রণোদনা দিয়ে কখনো রেমিট্যান্স বৃদ্ধি করা সম্ভব নয় এবং তারা বলেছে এটা কখনো বৃদ্ধি পাবে না। এটা সাময়িক এবং সাসটেইনেবলও বলেছিল তারা। এটা যেকোনো মুহূর্তে শেষ হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ২০১৯ সালে যখন প্রণোদনার জন্য আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম তার আগে রেমিট্যান্স ছিল প্রতি বছর ১৩ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার। ২ শতাংশ প্রণোদনা দেয়ার পর প্রথম বছরই সংগ্রহ করলাম ১৮ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার। দ্বিতীয় বছরে এই হার বেড়ে ২৫ বিলিয়ন ডলারে চলে যায়। রেমিট্যান্স যখন বেশি আসলো তখন তারা বললো অনেক বেশি এসেছে। তারা চায় কম-বেশি আসুক।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ