মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৭:০৪ পূর্বাহ্ন

মাধ্যমিক পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু ১ এপ্রিল, টেস্ট পরীক্ষা বাদ

রিপোটারের নাম / ৩৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : রবিবার, ২১ মার্চ, ২০২১
add

চলতি বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু হচ্ছে আগামী ১ এপ্রিল থেকে। ৭ এপ্রিল পর্যন্ত বিলম্ব ফি ছাড়া ফরমপূরণ করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। বিলম্ব ফিসহ ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত অনলাইনে ফরম পূরণ করা যাবে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এ বছর মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষা হবে না। রবিবার (২১ মার্চ) ঢাকা শিক্ষাবোর্ড সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানায়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত কেবল ঢাকা শিক্ষাবোর্ডই ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। অন্যান্য বোর্ডও পর্যায়ক্রমে ফরম পূরণের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে। তবে উচ্চ মাধ্যমিকের ফরম পূরণ কবে হবে এ নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি শিক্ষাবোর্ডগুলো। স্কুল খোলার দুই মাসের মধ্যে এই পরীক্ষা নেওয়া হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে আভাস পাওয়া গেছে।

জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান ভোরের কাগজকে বলেন, পরিস্থিতি বুঝে চলতি বছরের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফরম পূরণের বিষয়টি সম্পর্কে জানানো হবে। তিনি বলেন, করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এবার টেস্ট পরীক্ষাও হবে না। অর্থাৎ ফরম পূরণ করে পরীক্ষার্থীরা মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে। এবারের পরীক্ষার্থীদের জন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। শিক্ষাবোর্ডগুলোও সংক্ষিপ্ত সিলেবাস থেকে এরই মধ্যে প্রশ্নপত্র প্রণয়নের কাজও চূড়ান্ত করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে, রবিবার ঢাকা বোর্ড থেকে জারি করা মাধ্যমিক পরীক্ষার ফরমপূরণের বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়েছে, পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীসহ আগের বছরগুলোয় পরীক্ষায় অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীদের ১ এপ্রিলের মধ্যে নিজ প্রতিষ্ঠানের প্রধান বরাবর সাদা কাগজে আবেদন করতে হবে।

বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মাধ্যমিকের ফরমপূরণ বাবদ সর্বোচ্চ ১ হাজার ৯৭০ টাকা, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা এবং মানবিক বিভাগে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা ফি নিতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে বলেছে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড। এছাড়াও পরীক্ষার ফি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পত্র প্রতি ১০০ টাকা, ব্যবহারিকের ফি বাবদ পত্র প্রতি ৩০ টাকা, একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টের ফি বাবদ পরীক্ষার্থী প্রতি ৩৫ টাকা মূল সনদ বাবদ শিক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা, বয়েজ স্কাউট ও গার্লস গাইড ফি বাবদ ১৫ টাকা এবং জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ফি বাবদ পরীক্ষার্থী প্রতি ৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে পরীক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা অনিয়মিত ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থীদের তালিকাভুক্তি ফি ১০০টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ