শিরোনাম
রাজশাহীতে নেশার টাকা না পেয়ে পুত্রের হাতে পিতা খুন সুনামগঞ্জে’ প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন-ডিসি খালেদা জিয়া জনগণের পার্লামেন্টে খুনিদের বসায়: প্রধানমন্ত্রী তাহিরপুর সীমান্তে(প্রায়) ৫লক্ষ টাকার মালামাল আটক তালেবানের সঙ্গে ভারতের প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে পর্যটকবাহী নৌযান চলাচলে নতুন নির্দেশনা জারি করেছেন -(ইউএনও) রওশন এরশাদ এমপি’র সুস্থতা কামনায় এরশাদ ট্রাষ্টের খতমে কুরআন ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে জাতীয় পতাকা উত্তোলনে অনিয়ম: লিখিত অভিযোগ( ইউএনও) অফিসে আইসিইউতে রওশন এরশাদ দোয়া চাইলেন বিডিএ চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিন বাচ্চু বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদের আরোগ্য কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন

বন্দুকের মুখে আফগান নারীদের চাকরি ছাড়তে বাধ্য করা হচ্ছে

রিপোটারের নাম / ২২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১
add

আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের পর থেকেই তালেবান বিভিন্ন এলাকা নিজেদের দখলে নেওয়া শুরু করে। দেশটির গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি শহর তালেবানের দখলে। যেকোনো সময় রাজধানী কাবুলেরও পতন হতে পারে বলে ধারণা  করা হচ্ছে।

তালেবান ক্ষমতায় গেলে দেশটির নারীরা করুণ পরিস্থিতির মুখোমুখি হবেন বলে আশঙ্কা করছেন অনেকেই। এরই মধ্যে আফগানিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর কান্দাহারের আজিজি ব্যাংকে কর্মরত নয় নারী কর্মীকে তালেবান ব্যাংক থেকে বের করে করে দিয়েছে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

তালেবানের বন্দুকধারী কয়েকজন সদস্য ওই নারী কর্মীদের বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিয়েছেন।  তালেবান সদস্যরা তাদের কাজে আসতে নিষেধ করে দিয়েছে। চলতি বছরের জুলাই আজিজি ব্যাংকে ওই ঘটনা ঘটে বলে শুক্রবার রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছেন।

আজিজি ব্যাংকের ওই ঘটনার দুইদিন পর হেরাতের ব্যাংক মিল্লির এক শাখায় দুই নারী কর্মীর সাথে একই ঘটনা ঘটে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 
ব্যাংক মিল্লির ওই শাখায় তিন বন্দুকধারী তালেবান  যোদ্ধা ঢুকে নারী কর্মীদের জনসন্মুখে চেহারা দেখানোর জন্য সতর্ক করেন। 

এ ব্যাপারে তালেবানের  মুখপাত্র জাহিবুল্লাহ মুজাহিদিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি  কোনো মন্তব্য করেননি। মন্তব্য করতে রাজি হননি ওই ব্যাংক দুইটির সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

তবে তালেবানের দখলকৃত এলাকাগুলোতে নারী ব্যাংককর্মীরা কাজ করতে পারবেন কী না জানতে চাইলে জাহিবুল্লাহ জানান, এ ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি তালেবান।

তিনি বলেন,  ইসলামি ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার পর আইন আর আল্লাহর ইচ্ছা অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ