শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১২:০৯ অপরাহ্ন

জয়ের পথে লঙ্কানরা

রিপোটারের নাম / ২৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১ মে, ২০২১
add

পাল্লেকেলেতে দ্বিতীয় টেস্টে যে ফলাফল হচ্ছে তা দিবালোকের মতো স্পষ্ট। এই ম্যাচ জয়ের সুবাস পাচ্ছে লঙ্কানরা। দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেটে ১৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে স্বাগতিকরা। দিন শেষে উইকেটে অপরাজিত আছেন করুনারত্নে ১৩ ও ম্যাথিউজ ১ রান। এছাড়া সিংহলিজরা লিড পেয়েছে ২৫৯ রানের। সেইসঙ্গে হাতে আরও আছে ৮টি উইকেট। তাই বলা যায়, এই লিডটা নিশ্চয় বাংলাদেশের ধরাছোয়ার বাইরে নিতে চাইবেন স্বাগতিকরা। আর তিনশত রানের বেশি হলে ব্যাট হাতে জবাব দিতে হিমশিম খেতে হবে টাইগারদের।

তবে আজ তৃতীয় দিন ব্যাটিংয়ে হতাশা উপহার দেওয়া মুমিনুল বাহিনী শেষ সময়ে এসে বোলারদের কল্যাণে একটু স্বস্তির বাতাস পেয়েছে। লঙ্কানদের দলীয় ১৫ রানের দুই ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠিয়েছে সফরকারিরা। ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই আঘাত হেনেছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। তার ঘূর্ণিতে দিশেহারা হয়ে নাজমুল হোসেন শান্তর ক্যাচ হয়েছেন প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান লাহিরু থিরিমান্নে। আজ তিনি ২ রান করেছেন। পরের ওভারে আরেক স্পিনার তাইজুল ইসলামকে বোলিংয়ে নিয়ে আসেন অধিনায়ক মুমিনুল। তার বলে ফার্নান্দো সাজঘরে ফিরেন। এর ফলে তৃতীয় দিন শেষে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে টাইগার শিবিরে।

এর আগে আজ তৃতীয় দিন সকালে শ্রীলঙ্কা ৭ উইকেটে ৪৯৩ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করলে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ২৫১ রানে। দুর্দান্ত লঙ্কান স্পিনার জয়াবিক্রমার ঘূর্ণিতে দিশেহারা হয়ে পড়ে টাইগাররা। এমনকি ফলোঅন এড়াতে পারেনি। যদিও সফরকারীদের ফলোঅন না করিয়ে ২৪২ রানে এগিয়ে থাকা শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামে।

ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে জয়াবিক্রমা ৯২ রান দিয়ে নিয়েছেন টাইগারদের গুরুত্বপূর্ণ ৬ উইকেট তুলে নেন। এছাড়া ২টি করে উইকেট শিকার করেন রমেশ মেন্ডিস ও সুরঙ্গা লাকমাল। বিশেষ করে জয়াবিক্রমার ঘূর্ণিতে ভেঙে পড়ে বাংলাদেশের মিডল ও লোয়ার অর্ডার। ব্যক্তিগত ৪৯ রানে মুমিনুল হকের আউট হলে আর কেউ কোমর সোজা করে দাঁড়াতে পারেনি। একে একে ব্যর্থতার মিছিলে যোগ দেন লিটন দাস ৮,মেহেদী হাসান মিরাজ ১৬ ও তাইজুল ইসলাম ৯ রান।

এর আগে আজ তৃতীয় দিন প্রথম ইনিংসে দিনের শুরুতে ব্যাট হাতে বেশ দাপটে খেলেছেন টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। আগের টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরির সম্ভবনা জাগিয়ে ব্যর্থ হওয়া তামিম আজও হেটেছেন একই পথে। ব্যক্তিগত ৯২ রানের মাথায় জয়াবিক্রমার বলে আউট হলে নিজে সেঞ্চুরি মিস করেছেন দলের দারুণ অগ্রহতি ব্যহত করেছেন। ১৬৫ বলে ১২টি চারের সাহায্যে এই রান করেন তামিম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ