শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

করোনায় নয়, না খেয়ে মারা যাবে দরিদ্ররা: হকার বিক্ষোভে নেতারা

রিপোটারের নাম / ১৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১
add

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে গুলি করে অন্তত ৫ শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে এবং কর্মহীন হকারদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তার দাবিতে বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়ন বৃহষ্পতিবার (২২ এপ্রিল) বেলা ১১টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে।

বিক্ষোভ সমাবেশে সংগঠনের উপদেষ্টা শ্রমিকনেতা জলি তালুকদার বলেন, চলমান লকডাউন পরিস্থিতিতে শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের উপর যে সীমাহীন জুলুম-বঞ্চনা চালানো হচ্ছে এ দেশের মানুষ ক্ষমতাসীন সরকারকে তার উপযুক্ত জবাব দেবে। তিনি বলেন, দৈনিক ভিত্তিতে রোজগার করা মানুষ কর্মহীন হয়ে অভুক্ত দিন কাটাচ্ছে। সরকার করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় যে লকডাউন চাপিয়ে দিয়েছে তাতে শ্রমজীবী মানুষের ন্যূনতম খাদ্যের যোগান নিশ্চিত করার দায়িত্ববোধ করছে না। কারখানা খোলা রাখা হয়েছে অথচ শ্রমিকদের যাতায়াতের কোনো ব্যবস্থা করা হয়নি।

অন্যদিকে বাঁশখালীতে বকেয়া পাওনা ও ইফতারের বিরতি দাবি করায় নির্বিচারে গুলি করে শ্রমিক হত্যা করা হয়েছে। রাস্তায় অসহায় রিকশা শ্রমিকদের নির্যাতন চালাচ্ছে পুলিশ। দিন আনা দিন খাওয়া মানুষেরা করোনায় মারা না গেলেও অনাহারে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, এই অবস্থায় শ্রমিক-কৃষক-জনতার ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার কোনো বিকল্প নেই। মানুষের পুঞ্জিভূত ক্ষোভ বিস্ফোরণের মধ্য দিয়ে একটি গণবিদ্রোহে রূপ নেবে। সে দায় সরকারকেই নিতে হবে।

বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের সভাপতি আবুল হাশেম কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আফসার উদ্দিন, মঞ্জুর মঈন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হযরত আলী,সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে বাঁশখালীতে হত্যাকান্ডের শিকার শ্রমিকদের আজীবন আয়ের সমপরিমাণ ক্ষতিপূরণ এবং আহতদের সুচিকিৎসা, শ্রমিকদের বিরুদ্ধে হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, বকেয়া পাওয়া পরিশোধসহ সকল ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়ার দাবি জানানো হয়। সূত্রঃ ভোরের কাগজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ